শকুনির পাশায় মূল চরিত্রে অভিনয় করেন পুলিশ সুপার

বিনয় আগরওয়াল দক্ষিন দিনাজপুর:দক্ষ প্রশাসক হিসেবে তিনি সফল। খাঁকি উর্দি পরে সর্বদা আইন শৃঙ্খলা রক্ষা করায় অন্যতম কাজ। তবে এবার প্রশাসকের সেই চরিত্র থেকে হাজির নাটকের রঙ্গমঞ্চে। প্রশাসকের পর সফল অভিনয়েও। তিনি হলে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার পুলিশ সুপার প্রসূন ব্যানার্জি। রবিবার রাতে বালুরঘাট নাট্যতীর্থে অনুষ্ঠিত নাটক শকুনির পাশায় মূল চরিত্রে অভিনয় করেন প্রসূনবাবু। অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের মন জয় করেন তিনি।

নাটকের শহর বলেই পরিচিত দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট শহর। এই শহরে রয়েছে বিখ্যাত নাট্য ব্যক্তিত্ব। বছর দুয়েক আগে দ্বিতীয় বারের জন্য জেলা পুলিশ সুপার পদে যোগ দেন প্রসূন ব্যানার্জি। জেলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষার গুরু দায়িত্ব প্রসূনবাবুর উপরেই। নাটকের শহরে আসার পর থেকেই নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন তিনি। নাটকের শহরে এসে নিজের ভেতরের সুপ্ত সেই প্রতিভাকে আটকে রাখতে পারেননি তিনি। মাস কয়েক আগে প্রথম নাটক চোপ আদালত চলছে সেখানে অভিনয় করেন। নাটকটির পাশাপাশি সেই সময় প্রসূন ব্যানার্জির অভিনয়ের প্রশংসা করেছিলেন শহরবাসী। নাটকটি জেলার পাশাপাশি কলকাতাতেও অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গতকাল প্রসূনবাবুর দ্বিতীয় নাটক শকুনির পাশা অনুষ্ঠিত হয়। যেখাবে মাতুলের মূল চরিত্র বা শকুনি পাশার মূল চরিত্রে তিনি অভিনয় করেন। ১ ঘন্টা ১৫ মিনিটের নাটকের মধ্যে বেশীর ভাগ অংশেই রয়েছেন তিনি। নাটকটি মঞ্চস্থ করার জন্য সহযোগীতা করেন বালুরঘাটের সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। ও বিশিষ্ট নাট্য ব্যক্তিত্ব দেবেশ চ্যাট্টার্জি। অভিনয়েও দর্শকদের মন জয় করেন পুলিশ সুপার।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার প্রসূন ব্যানার্জি জানান, দিনাজপুর রূপকথা সংস্থার পক্ষ থেকে নাটকটি মঞ্চস্থ করা হয়। সকলে নিরলস পরিশ্রম করেছে এর জন্য। নাটকের শহরে অভিনয় করার এক আলাদা অনুভুতি রয়েছে। যারা নাটকে অভিনয় করেছে তারা সকলেই কোন না কোন কাজের সঙ্গে যুক্ত। ফলে দিনে নাটকের রিহার্সাল করা সম্ভব হত না। বেশীর ভাগ দিনই রাত জেগে রিহার্সাল বা মহরা করতেন তারা। এর পাশাপাশি সাংসদের তত্ত্বাবধান করতেন। আগামীতেও নাটক ও তাতে অভিনয় করতে চান তিনি বলে জানিয়েছেন।

সাংসদ অর্পিতা ঘোষ জানিয়েছেন, তিনি সাংসদ হিসেবে এদিন নাট্যতীর্থে হাজির ছিলেন না। একজন থিয়েটারের লোক হিসেবে ছিলেন। তিনি নিজে সাউন্ড সঞ্চালনা করেছেন। তবে আরও অনেক কিছু করা যাত। যা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। আগামীতে আরও ভাল নাটক উপহার দিতে চান তিনি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *